Walton Primo NH3i Hands on Review

Feb 5 • রিভিউ, স্মার্টফোন • 361 Views • No Comments on Walton Primo NH3i Hands on Review

বছরের শুরু থেকেই একের পর এক লো বাজেটের স্মার্টফোন বাজারে লঞ্চ করছে ওয়ালটন । সম্প্রতি NH সিরিজের অ্যান্ডারে আরও একটি স্মার্টফোন আনল ওয়ালটন । আর এটি হল Walton primo NH3I. যারা অল্প বাজেটে বড় ডিসপ্লের চান তারা অন্তত্য  একবার হলেও Walton Primo NH3i স্মার্টফোনটি মাথায় রাখতে পারেন, কারন আমার মনে হয় না এমন বাজেট ইউজারদেন জন্য অন্য কোনো ব্যান্ড এমন বড় ডিসপ্লে অফার করছে । শুধু ডিসপ্লে নয়, স্মার্টফোনটির বিল্ড কোয়ালিটিও আমার কাছে ভালো লেগেছে । যাইহোক, ৬০০০ টাকার আসে পাশে স্মার্টফোনটি কেমন হবে সেটি জানতে সম্পূর্ন  রিভিউটি দেখে নিতে পারেন ।

এক নজরে স্মার্টফোটির ফিচারগুলো দেখে নিতে পারেনঃ

ডিসপ্লে ৫.৫  ইঞ্চি এইচ ডি  আইপিএস ডিসপ্লে; ১২৮০*৭২০ রেজ্যুলেশন
অপারেটিং সিস্টেম অ্যান্ড্রয়েড ৭.০ নোগেট
প্রসেসর ১.৩ গিগাহার্জ কোয়াড কোর প্রসেসর
র‌্যাম ১ জিবি
ইন্টারনাল স্টোরেজ/ রোম ৮ জিবি
জিপিউ মালি ৪০০
মেমোরী কার্ড স্লট আছে, সর্বোচ্চ ৬৪ জিবি পর্যন্ত
রিয়ার ক্যামেরা  ৫ মেগাপিক্সেল
ফ্রন্ট ক্যামেরা ৫ মেগাপিক্সেল
সিম সাপোর্ট ২ টি  মাইক্রো সিম সার্পোটেড
ব্যাটারী ২৫০০ মিলি অ্যাম্পিয়ার ব্যাটারী
মূল্য ৬২৯০ টাকা

primo NH3I স্মার্টফোনটির মেইন কি সেলিং পয়েন্ট এর বিগ ডিসপ্লে। সুতারং এটি দিয়েই আগে শুরু করা যাক।  ৫.৫ ইঞ্চি HD আইপিএসের বেশ বড় ডিসপ্লে ব্যবহার করা হয়েছে স্মার্টফোনটিতে। বড় ডিসপ্লেতে প্রটেকশনটাও জরুরী । এই দিকটাতে কন্সিডার করেনি ওয়ালটন। স্মার্টফোণটিতে Scratch Resistant Glass থাকায় আপাতত Scratch পড়ার চিন্তা মাথা থেকে সম্পূর্ন ঝেরে ফেলে দিন। যাইহোক,  1280 x 720 Pixels রিজুলেশনে ফুল এইচ ডি ভিডিও গুলো অনায়াসে প্লে করতে পারবেন ।

ডিসপ্লে অনুযায়ী রেজুলেশন কম কিন্তু বাজেটে বিবেচনায় এর থেকে বেশী কিছু আশা করাটা একেবারেই বোকামি।

স্মার্টফোনটির বিন্ড কোয়ালিটি নিয়ে বলেতে গেলে , আমার কাছে একটু ভারী মনে হয়েছে। কারন খুজতে গিয়ে প্রথমে ব্যাটারির দিকে নজর দিলাম । একটু হতাশার সাথেই বলতে হচ্ছে স্মার্টফোনটিতে 2500 mAh এর ব্যাটারি ব্যবহার করা হয়েছে, বড় ডিসপ্লের পাশে এটা আমার কাছে বেশ বেমানান মনে হয়েছে। যাইহোক, স্মার্টফোনটির বিল্ড কোয়ালিটি এই বাজেটে বেষ্ট। রেয়ার ক্যামেরা পরশনটা ভার্টিক্যালি  দেওয়া হয়েছে আর বাম্পটা আলাদা করাই প্রিমিয়াম একটা ফীল পেয়ে যাবেন। Walton primo NH3I এর রেয়ার ক্যামেরা হিসেবে থাকছে বি এস আই সেন্সর যুক্ত ৫ মেগা পিক্সেল এর ক্যামেরা নিচে থাকছে স্পিকার।

ব্যাকপার্টটিতে ডট টেক্সচার থাকায় ডিভাইসটি হাতেও ভালো গ্রিপ পাবেন ।  primo NH3I এর লুক আসলেই চোখে পড়ার মতোই । এই ডিভাইসটির ব্যাকপার্টি ও রিমুভেবল । ব্যাটারিটিও রিমুভেবল। আর একসাথে ২টি মাইক্রো সিম স্লটের পাশাপাশি  থাকছে এসডি কার্ড স্লট। expandable মেমরি হিসেবে আপটু ৬৪ জিবি পর্যন্ত ব্যাবহারের সুবিধা থাকছে।

রেয়ার ক্যামেরাটি অনেকটা নর্মাল ধাচের। ফিক্সড ফোকাস ক্যামেরা ব্যবহার করাই পিকচার কোয়ালিটি আপনাকে কন্সিডার করে নিতে হবে। তাছাড়া প্রোফেসনাল ক্যামেরা মুডটি থাকছে। ক্যামেরা সেটিন্স অপশন থেকে এক্সপোজার এবং আই এস  ও কন্ট্রোল করে ছবি ক্যাপচার করতে পারবেন।

শুটিং মুডেও বেশ কিছু ভালো ফিচার্স পাবেন । আর সব থেকে মজার বিষয় হলো panorama mode, HDR, auto face recognition, এর পাশা পাশি নতুন ফিচার হিসেবে portrait mode ও যুক্ত করা হয়েছে  স্মার্টফোনটিতে।  আর হ্যা আরেকটি কথা – স্মার্টফোনটিতে প্রাইমারি ও সেকান্ডারি ২ টি ক্যামেরাতেই  ফ্ল্যাশ থাকছে । তবে এই ফ্ল্যাশ টি ছবি তোলার কাজে ব্যাবহার না করতে পারলে ও আপনার অন্ধকার রাস্তার পথ চলার কাজে ব্যাবহার করতে পারবেন ।

ফ্রন্ট ক্যামেরাতে ও ৫ মেগা পিক্সেল এর বি এস আই সেন্সর যুক্ত ক্যামেরা থাকছে। ফ্রন্ট ক্যামেরাতে ও রেয়ার ক্যামেরার মতো প্রায় সব ফিচার্স ও সেটিংস থাকছে তাই এর ক্যামেরা নিয়ে আর কিছু বলতে চাইনা।ফ্রন্ট ক্যামেরা দিয়ে ডে লাইটে মোটামুটি ভালো ছবি তুলতে পারবেন ‘ ক্যামেরাটি দিয়ে আমাদের তোলা ছবি গুলো দেখে নিতে পারেন।

ডিসপ্লে নিয়ে আগেই কথা বলেছি। আরও অ্যাড করতে হলে বরাবরের মতো এবারও ওয়ালটন এর অন্যান্য স্মার্টফোন গুলোর মতো এতেও মিরা ভিশন টেকনোলজি ব্যাবহার করা হয়েছে।

অপারেটিং অ্যান্ড্রয়েড ৭.০ নোগেট  ভার্সন রান করছে Walton primo NH3I স্মার্টফোনটির  ইউ আই একেবারেই স্টক। আইকন গুলো কাস্টোমাইজড ।

মাঝে মাঝে এর টাচ রেস্পন্স এ একটু ডিলে মনে হয়েছে । তো ওভার অল ডিভাইসটির টাচ রেস্পনস  মোটামোটি বলা চলে ।

স্মার্টফোনটিতে 1.3 GHZ এর কোয়াড কোর প্রসেসর থাকছে যার জি পি ও  রয়েছে মালি ৪০০। এর র‍্যাম  ১ জিবি তো বুঝতেই পারছেন এর থেকে কেমন গেমিং পার্ফোম্যান্স আশা করা যেতে পারে।

হাই গ্রাফিক্স এর গেইম খেলার চিন্তা থাকলে আগেই মাথা থেকে ঝেরে ফেলুন, মিড লেভেল এর গেমিং এ অল্প কিছু  ল্যাগিং ধরা পরেছে । এক কথায় গেমিং পার্ফোম্যান্স নিয়ে ডিভাইসটি আশানুরুপ প্রভাব ফেলেনি। ইন্টারনাল স্টোরেজ হিসাবে থাকছে ৮ জিবি রোম। আপনি যদি স্টোরেজ বারাতে চান  তাহলে একটি এসডি কার্ড ব্যবহার করতে পারেন ।

walton primo NH3I এ বেশ  কিছু স্পেশাল ফিচার্স ও অফার করছে, স্পেশাল ফিচার্স গুলোর মধ্য মাল্টি উইন্ডো রয়েছে, মাল্টি উইন্ডোর সুবিধাটি নতুন করে বলার মতো কিছু নেই, স্মার্ট জেসচার ও স্মার্ট একশন এর সুবিধা দিয়ে এই রেঞ্জের স্মার্টফোনগুলো থেকে NH3I স্মার্টফোনটিকে এগিয়ে রাখছে ওয়ালটন । স্মার্ট জেসচার ও স্মার্ট একশন ফিচার্সটি উপভোগ করতে অবশ্যই আপনাকে সেটিন্স অপশন থেকে স্মার্ট জেসচার ও স্মার্ট একশন এনাবল করে নিতে হবে।

ডিভাইসটির বেঞ্ছমার্ক স্কোর গুলো এক নজরে দেখে নিনঃ

এর ব্যাটারি একদিন চলার মত ব্যাকআপ দিয়ে দিবে। আর ওটিএর মত ফিচার তো থাকছে।

আশা করি Walton primo NH3I এর ইউজার এক্সপিরিয়েন্স আপনাদের সাথে শেয়ার করতে পেরেছি। তারপর ও যদি ডিভাইসটি নিয়ে আপনাদের কোনো মতামত থাকে তাহলে নিচে কমেন্ট বক্সে  আমাদের জানাতে পারেন ।

 

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

« »