Walton Primo GM2+ Hands on Review

Aug 30 • রিভিউ, স্মার্টফোন • 250 Views • No Comments on Walton Primo GM2+ Hands on Review

কিছু দিন আগেই Primo GM2 বাজারে ছেড়েছিল Walton।এক কথায় লো বাজেট স্মার্টফোন গুলোর মধ্যে আমার দেখা বেষ্ট ডিভাইস ছিল। এবার তারই আপগ্রেড ভার্সন Primo GM2+ বাজারে লঞ্ছ করেছে Walton। একই বিল্ড কোয়ালিটির এই ডিভাইসটিতে র‌্যাম, রোম এবং রেয়ার ক্যামেরায় পরিবর্তন করেছে Walton।এই ডিভাইসটি নিয়েই আজকের রিভিউ। দেখতে সাথেই থাকুনঃ

ডিসপ্লে ৫ ইঞ্চি অন-সেল এইচডি  আইপিএস ডিসপ্লে; ১২৮০X৮০০ রেজ্যুলেশন
অপারেটিং সিস্টেম অ্যান্ড্রয়েড ৭ নোগাট
প্রসেসর ১.৩ কোয়াড কোর প্রসেসর
র‌্যাম ২ জিবি
ইন্টারনাল স্টোরেজ/ রোম ১৬ জিবি
জিপিউ মালি ৪০০
মেমোরী কার্ড স্লট আছে, সর্বোচ্চ ৬৪ জিবি পর্যন্ত
রিয়ার ক্যামেরা বিএসআই ১৩ মেগাপিক্সেল
ফ্রন্ট ক্যামেরা বিএসআই ৫ মেগাপিক্সেল
সিম সাপোর্ট ডুয়েল মিনি সিম
ব্যাটারী ৪০০০ মিলি অ্যাম্পিয়ার ব্যাটারী
সেন্সর এক্সেলেরোমিটার ,লাইট এন্ড প্রক্সিমিটি
মূল্য ৮,৩৫০ টাকা

বরাবরের মত ডিভাইসটির আনবক্সিং থাকছে। রয়েছে – চার্জিইং অ্যাডাপ্টার, ইউএসবি ডাটা ক্যাবল, হেড ফোন, ওয়ারেন্টি কার্ড কম্বাইন উইথ ইউজার ম্যানুয়াল। আর ডিভাইসটির প্রটেকশনের জন্য ব্যাক ট্রান্সপারেন্ট কভার রয়েছে।
Primo GM2 এবং Primo GM2+ এই দুইটি ডিভাইসটির মধ্যে ডিজাইন কিংবা বিল্ড কোয়ালিটির মধ্যে কোন পার্থক্য। মেটাল এবং প্লাসটিকের কম্বাইন্ড বিল্ড ডিভাইসটির ব্যাক পার্টটি প্লাস্টিকের হলেও এতে ম্যাট ফিনিশ দেয়া হয়েছে।

ম্যাট ফিনিশটি অনেকটায় ভিজিবল। হাতে ধরে অন্য রকম ফিল পাবেন। সাইড গুলো কিছুটা কার্ভ হওয়াতে সহজেই হাতে গ্রিপ পেতে সাহায্য করবে।


টপ প্যানেলে অন-সেল এইচডি ডিসপ্লের সাথে 2.5 কার্ভড গ্লাস ব্যবহার করা হয়েছে।

ফ্রন্ট প্যানেলে থাকছে বিএসআই ৫ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা সাথে এলইডি ফ্ল্যাশ, স্পিকার এবং সেন্সর। টপ বোটম প্যানেলে থাকছে ক্যাপাসিটিভ ট্যাস কী। লেফট প্যানেলে থাকছে পাওয়ার বাটন ও ভলিউম রোকার। রাইট প্যানেলটি বরাবরের মতই থাকছে ফাকা। টপ রেয়ার প্যানেলে থাকছে ইউএসবি পোর্ট ও অডিও জ্যাকপোর্ট আর বোটম প্যানেলে থাকছে প্রাইমারি মাইক্রোফোন।


Primo GM2 এবং Primo GM2+ ডিভাইস দুইটির পার্থক্যটা এখানেই। Primo GM2 রেয়ার ক্যামেরা হিসাবে ৮ মেগা পিক্সেল ক্যামেরা ব্যবহার করা হয়েও Primo GM2+ ডিভাইসটির ব্যাক প্যানেলে থাকছে বিএসআই ১৩ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা আর পাশেই এলইডি ফ্ল্যাশ। নিচে রয়েছে লাউড স্পিকার।


ব্যাক পার্টটি রিমুভেবল হলেও ডিভাইসটিতে ৪০০০ মিলি অ্যাম্পিয়ারের নন রিমভেবল ব্যাটারি থাকছে। রয়েছে ২টি সিম এবং এসডি কার্ড স্লট।
ডিভাইসটি ৩টি ভিন্ন কালারে বাজারে এসেছে। কফি, গোল্ডেন এবং ব্ল্যাক।


ডিসপ্লে হিসেবে ডিভাইসটিতে ৫ ইঞ্চি অন-সেল আইপিএস ডিসপ্লে ব্যবহার করা হয়েছে। স্ক্রীন রেজ্যুলেশন ১২৮০X৭২০ পিক্সেল, যা ১৬.৭ মিলিয়ন কালার সাপোর্ট করে। ডিভাইসটির স্ক্রীন ব্রাইটনেস, কালার টোন এবং কনট্রাস্ট এক কথায় জটিল ছিল। তারপর মিরা ভিশন টেকনলজি তো রয়েছেই। লো বাজেট স্মার্টফোন হলেও ডিভাইসটিতে ৫টি ফিঙ্গার প্রিন্ট টাচ সাপোর্ট করে।

ডিভাইসটিতে অপারেটিং সিস্টেম হিসেবে অ্যান্ড্রয়েড ৭ নোগাট ব্যবহার করা হয়েছে। ইউআইটি কিছুটা কাস্টমাইড। আইকন গুলোও কাস্টমাইড, তাছাড়া বাকি সবকিছুই স্টক অ্যান্ড্রয়েডের মত।

ফুল এইচডি ভিডিও গুলো দারুণ ভাবে এঞ্জয় করতে পারবেন। ভিডিও প্লেব্যাক ছিল দারুন, ভিউইং অ্যাঙ্গেলো আমার কাছে ভালোই মনে হয়েছে।
Primo GM2+ ডিভাইসটিতে অ্যান্ডরয়েড নোগাট ব্যবহার করা হয়েছে। ইউজার ইন্টারফেসে কোন পরিবর্তন করা হয়নি। স্টক অ্যান্ডরয়েডের মতই। ট্রানজিশন ছিল ফাস্ট। কোন লাগ নেই।

রয়েছে ওটিএ ফিচার সুতারং সময় মত লেটেস্ট আপডেট গুল পেয়ে যাবেন।


Primo GM2 এর মত Primo GM2+ ডিভাইসটির প্রসেসরে কোন পরিবর্তন করা হয়নি। ডিভাইসটিকে ব্যাক আপ দিচ্ছে মিডিয়াটেক ১.৩ গিগাহার্জ কোয়াড কোর প্রসেসর। আর এর সাথেই জিপিইউ হিসেবে রয়েছে মালি ৪০০ এমপি।


Primo GM2 তে ১ জিবি রাম ব্যবহার করা হলেও Primo GM2+ ডিভাইসটিতে ২ জিবি রাম ব্যবহার করা হয়েছে। এক্সট্রা রাম মাল্টিটাস্কিং এবং এইচডি গেম গুলোর পারফর্মেঞ্ছকে আরও ইম্প্রোভ করবে। আর সাথেই রোম হিসেবে পাচ্ছেন ১৬ জিবি স্টোরেজ। তাছাড়া এসডি কার্ড ব্যবহার করে মেমোরি ৬৪ জিবি পর্যন্ত এক্সপান্ড করতে পারবেন।
গেমিং অনেকটাই স্মুথ আর লাগ ফ্রী ছিল। ashplat 8 টাইপ এর গেম গুল খেলে দেখেছি, ভালই ছিল।


ডিভাইসটিতে বিএসআই ১৩ মেগা পিক্সেল রেয়ার ক্যামেরা ব্যবহার করা হয়েছে। ডিভাইসটির ক্যামেরা পারফর্মেঞ্ছ এক কথায় অস্থির। পিকচার গুলো ডিটেইলস ভাল ছিল। বিএসআই সেন্সর থাকায় লো লাইট পারফর্মেঞ্ছ ভাল ছিল। তারপরও লো লাইটে ছবি তুলার জন্য এলইডি ফ্ল্যাশ থাকছে।
ফ্রন্টে থাকছে বিএসআই ৫ মেগা পিক্সেল ক্যামেরা।

ফ্রন্ট ক্যামেরার পিকচার বেশ ভালই।  তারপরো থাকছে ফ্রন্ট ফ্ল্যাশ।

মাল্টিটাস্কিং মোটামুটি ছিল। Primo GM2+ ডিভাইসটি ওটিজি এনেবল একটি ডিভাইস। পেন ড্রাইভের সাথে সাথে অন্যান্য ইউএসবি পেরিফেরাল গুলো ব্যবহার করতে পারবেন।

ডিভাইসটির বেঞ্ছমার্ক স্কোর গুলো দেখে নিনঃ

ডিভাইসটিতে ৪০০০ মিলি আম্পেয়ারের ব্যাটারি ব্যবহার করা হয়েছে। মোটামুটি ২ দিন বিনা চার্জ এ ব্যবহার করতে পারবেন।
এইতো এই ছিল Walton Primo GM2+ এর রিভিউ। ডিভাইসটি Primo GM2 এর বড় ভাই। যারা একটু বেশী রাম এবং ক্যামেরা পারফর্মেঞ্ছ এক্সপেট করছিলেন তাদের জন্য এই ডিভাইসটি।

আশা করি আমাদের রিভিউটি ভালো লেগেছে। কোন কিছু জানার থাকছে কমেন্ট করুন।

 

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

« »