Trending

Walton Primo EF8 4G-বাংলাদেশে তৈরী স্মার্টফোন

Dec 5 • স্মার্টফোন • 66 Views • No Comments on Walton Primo EF8 4G-বাংলাদেশে তৈরী স্মার্টফোন

স্বল্প মূল্যে অনেক কিছু, এই পণ নিয়েই “মেড ইন বাংলাদেশ” ট্যাগ নিয়ে মাঠে নেমেছে ওয়ালটন। আজকে আমরা কথা বলবো ওয়ালটনের নতুন স্মার্টফোন ওয়ালটন প্রিমো ই.এফ ৮ ৪জি নিয়ে। মাত্র ৪,৯৯৯ টাকার ডিভাইসটি আপনাকে অফার করছে আকর্ষণীয় সব ফিচার। ৪জি সাপোর্টেড ওয়ালটন প্রিমো ই.এফ ৮ ৪জি – এ রয়েছে ৪.৯৫”  ফুল ভিউ ডিসপ্লে,  ২.৫ডি কার্ভড গ্লাস, ১ জিবি র‌্যাম, ৮ জিবি ইন্টারনাল মেমোরী, ৫ মেগাপিক্সেল রিয়্যার ক্যামেরা ২০৫০ মিলি এ্যম্পিয়ার লি-আয়ন ব্যাটারি সহ আরো অনেক ফিচার।

এক নজরে ওয়ালটন প্রিমো ই.এফ ৮ ৪জি

ডিভাইসের নাম ওয়ালটন প্রিমো ই.এফ ৮ ৪জি
ডিসপ্লে: ৪.৯৫” ফুল ভিউ ডিসপ্লে
প্রোটেকশন ২.৫ডি কার্ভড গ্লাস
র‌্যাম ১ জিবি
রম ৮ জিবি ( ৩২ জিবি পর্যন্ত বাড়ানো যাবে)
সি.পি.ইউ ১.৪০ গিগাহার্টজ কোয়াডকোর প্রোসেসর
জি.পি.ইউ মালি টি৮২০
ক্যামেরা রিয়্যার ৫ মেগাপিক্সেল
ফ্রন্ট ৫ মেগাপিক্সেল
ব্যাটারি ২০৫০ মিলি এ্যম্পিয়ার
দাম ৪,৯৯৯টাকা।

আনবক্সিং

ওয়ালটন প্রিমো ই.এফ ৮ ৪জি এর সাথে আপনারা পাচ্ছেন:

ওয়ালটন প্রিমো ই.এফ ৮ ৪জি এর ভালা লাগা ফিচার গুলো

  • রেডিও উইথ রেকর্ডিং ফিচার
  • ৪জি সাপোর্ট
  • ফ্রন্ট ফ্ল্যাশ লাইট
  • ব্যাটারি সেভার
  • ১.৪০ গিগাহার্টজ কোয়াডকোর প্রোসেসর।

ডিসপ্লে এবং টাচ

ওয়ালটন প্রিমো ই.এফ ৮ ৪জি এ রয়েছে ৪.৯৫” ফুল ভিউ ডিসপ্লে। ডিসপ্লে-তে রয়েছে এফ ডব্লিউ ভি জি এ  টেকনোলিজি। ডিসপ্লের রেজুল্যুশন ৪৮০ x ৯৬০ পিক্সেল। ডিসপ্লের টাচ রেছপঞ্ছ বেশ ভালো এবং ল্যাগ ফ্রি। বলা বাহূল্য ওয়ালটন প্রিমো ই.এফ ৮ ৪জি এর ডিসপ্লে বেশ উজ্বল এবং লাইভলি। ডিভাইসটিতে মাল্টি টাচ সাপোর্ট করে ২ আংগুল পর্যন্ত।

র‌্যাম এবং রম

ওয়ালটন প্রিমো ই.এফ ৮ ৪জি এ ১ জিবি র‌্যামের পাশাপাশি রয়েছে ৮ জিবি ইন্টারনাল মেমোরী। ইন্টারনাল মেমেরাী ৩২ জিবি পর্যন্ত বাড়ানো যাবে।

সি.পি.ইউ / জি.পি.ইউ

ওয়ালটন প্রিমো ই.এফ ৮ ৪জি এ রয়েছে ১.৪০ গিগাহার্টজ কোয়াডকোর প্রোসেসর এবং মালি টি৮২০ জি.পি.ইউ। বাজেট হিসেবে কম্বিনেশন কিন্তু খারাপ না।

গেমিং পারফরমেন্স

ওয়ালটন প্রিমো ই.এফ ৮ ৪জি মূলত এন্ট্রি লেভেলের স্মার্টফোন। তবু ও ডিভাইসটিতে এসফাল্ট ৮, নাইট্রো, সনিক ড্যাশ গেমস গুলো স্মুদলি রান করতে পেরেছি।

আউটলুক

ওয়ালটন প্রিমো ই.এফ ৮ ৪জি-এ রয়েছে ৪.৯৫” ফুল ভিউ ডিসপ্লে। ফ্রন্ট প্যানেলে উপরের দিকে রয়েছে ৫ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা উইথ ফ্ল্যাশ লাইট। প্রক্সিমিটি সেন্সর রয়েছে কামেরার ঠিক পাশেই। ওয়ালটন প্রিমো ই.এফ ৮ ৪জি এর উপরের দিকে রয়েছে মাইক্রো ইউ.এস.বি চার্জিং পোর্ট এবং অডিও পোর্ট। 

রিয়্যার প্যানেলে রয়েছে ফ্লাশ লাইট সহ ৫ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা।

ভলিউম রকার্স এবং পাওয়ার বাটন রয়েছে ডিভাইসের উপরের দিকে ডান পাশে। ব্যাকপার্ট-টি উভয় দিকেই কার্ভ রাখা হয়েছে। যার ফলে ডিভাইসটির গ্রিপাবিলিটি বেশ কমফোরটেবল।

ডিভাইসটির পেছনের পার্ট-টি রিমুভেবল। সিম কার্ড এবং মাইক্রো এস.ডি পোর্ট গুলো রয়েছে ব্যাটারির উপরের দিকে।

ব্যাটারি ব্যাকাপ রয়েছে ২০৫০ মিলি এ্যম্পিয়ার। ব্যাটারি ব্যাকাপ এর থেকে ভালো হতে পারতো।

ডিভাইসটির দৈর্ঘ্য ১৩৮.৭ মিলিমিটার, প্রস্থ্য ৬৫.৮ মিলিমিটার এবং পূরুত্ব ৯.৯ মিলিমিটার। আর ডিভাইসটির ওজন ১২৮ গ্রাম মাত্র।

 

ইউজার ইন্টারফেস

ওয়ালটন প্রিমো ই.এফ ৮ ৪জি এ স্টক এ্যন্ড্রয়েড ইউজার ইন্টারফেস ইউজ করা হয়েছে। ইউজার ইন্টারফেস, আইকন সব কিছুই কাষ্টমাইজ করা হয়েছে।

 

অপারেটিং সিস্টেম

ওয়ালটন প্রিমো ই.এফ ৮ ৪জি এ অপারেটিং সিস্টেম হিসেবে পাবেন এ্যন্ড্রয়েড ওরিয় ৮.১ (গো এডিশন) অপারেটিং সিস্টেম। এই অপারেটিং সিস্টেম বেশ অপটিমাইজড এবং খুবই লাইট যার ফলে ইউজার-রা পাবেন ফাষ্ট ইউজিং এক্সপিরিয়েন্স।

ক্যামেরা

এন্ট্রি লেভেলের এই স্মার্টফোনে বেশ কিছু ফিচার রয়েছে। ক্যামেরা দিয়ে তোলা ছবি মোটামুটি পর্যায়ের। ডিভাইসটির ফ্রন্ট এবং ব্যাক উভয় দিকেই রয়েছে ৫ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা। ফ্রন্ট ক্যামেরায় ফ্ল্যাশ লাইট ইউজ করা হয়েছে। ক্যামেরা ফিচার গুলো দেখে নিন। 

কানেক্টিভিটি এবং সেন্সর

ওয়ালটন প্রিমো ই.এফ ৮ ৪জি এ যে সকল সেন্সর রয়েছে তা হলো:

এ্যকসেলোমিটার ৩ডি, প্রক্সিমিটি, জিপিএস ইত্যাদি।
ওয়ালটন প্রিমো ই.এফ ৮ ৪জি এ যে সকল কানেক্টিভিটি রয়েছে: ওয়াই-ফাই, ব্লুটুথ ভার্সন ৪, মাইক্রো ইউ.এস.বি ২.০, ও.টি.এ ডব্লিউ ল্যান হটস্পট ইত্যাদি।

বেঞ্চমার্ক স্কোর

ওয়ালটন প্রিমো ই.এফ ৮ ৪জি এর গিকবেঞ্চ টেষ্ট করেছি আমরা। দাম হিসেবে স্কোর যথেষ্ট ভালো।

দাম

ওয়ালটন প্রিমো ই.এফ ৮ ৪জি এর বাজার মূল্য রাখা হয়েছে ৪,৯৯৯ টাকা।

মন্তব্য

স্মার্টফোন এখন খুব-ই কম্পিটিটিভ। কাজেই প্রতিটা স্মার্টফোন নিমার্নকারী প্রতিষ্ঠানের উদ্দেশ্য থাকে বাজারে ভালো কোয়ালিটির পন্য দিয়ে টিকে থাকা। ওয়ালটন প্রিমো ই.এফ ৮ ৪জি এমন একটি স্মার্টফোন যা এই বাজেটে বাজারের সেরা স্মার্টফোন হিসেবে আমি মনে করি। চাইলে আপানারা অবশ্যই মিলিয়ে দেখতে পারেন।

 

 

 

 

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

« »