গেম অব থ্রোনসে ডাক পেয়েছিলেন বাংলাদেশি হৃদি শেখ

Jan 10 • বিনোদন • 97 Views • No Comments on গেম অব থ্রোনসে ডাক পেয়েছিলেন বাংলাদেশি হৃদি শেখ

রাজি থাকলে জনপ্রিয় টেলিভিশন সিরিজ ‘গেম অব থ্রোনস’-এর সর্বশেষ সিজনে দেখা যেত রুশ বংশোদ্ভূত বাংলাদেশি মেয়ে হৃদি শেখকে। এমনটাই দাবি করেছেন চ্যানেল আই সেরা নাচিয়ে তারকা। গত বছর ভারতের স্টার প্লাস চ্যানেলের ‘ডান্স প্লাস’-এ অংশ নেন তিনি। সেখান থেকে জন্মভূমি রাশিয়ায় গিয়ে জানতে পারেন এই খবর। একটি অনলাইন সংবাদমাধ্যমকে হৃদি বলেন, ‘রাশিয়ার বিভিন্ন অ্যাক্টিং এজেন্সিতে আগে থেকে আমার পোর্টফোলিও দেওয়া ছিল। সেখান থেকে আমার সম্পর্কে জেনে ‘গেম অব থ্রোনস’-এর কাস্টিং ডিরেক্টর জুলি শুবার্ট যোগাযোগ করেন। আমার ফেসবুক ডি-অ্যাক্টিভ থাকায় খুশির খবরটা তখন কাউকে জানাতে পারিনি।’

এমন অফার পেয়ে স্বভাবতই ভীষণ উচ্ছ্বসিত ছিলেন হৃদি, “বিশ্বের এক নম্বর টেলিভিশন সিরিজটির একটি গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে অভিনয়ের কথা বলা হয় আমাকে। শুনে খুবই বিস্মিত হই। কিন্তু যখন জানতে পারি আমাকে অ্যাকশন দৃশ্যের পাশাপাশি এমন কিছু দৃশ্যে অভিনয় করতে হবে, যেটা বাংলাদেশি মেয়ের সঙ্গে যায় না, তখন সরে আসি। একে তো আমি অ্যাকশন দৃশ্যের জন্য প্রস্তুত নই, আবার বোল্ড দৃশ্যের কথা ভেবেই ‘না’ করে দিই। তবে নিঃসন্দেহে এটা আমার ক্যারিয়ারের সেরা অফার।”

হৃদি ‘গেম অব থ্রোনস’-এ প্রস্তাব পাওয়া নিয়ে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করলেও সাম্প্রতিক সময়ে সিরিজটির কাস্টিং নিয়ে প্রতারণার ঘটনাও ঘটেছে। জনপ্রিয় এই টিভি সিরিজের কাস্টিং ডিরেক্টরের পরিচয় দিয়ে অনেক অভিনেত্রীকে অভিনয়ের প্রস্তাব দেওয়ার খবর পাওয়া গেছে। পরে দেখা গেছে, পর্নো ছবি তৈরি করে এমন বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান এ ধরনের কাজ করে। আসল কাস্টিং ডিরেক্টরের প্রফাইল হ্যাক করে বিভিন্ন অভিনেত্রীর কাছে প্রস্তাব পাঠানো হয়। কিছুদিন আগে এমন অভিযোগ করেছিলেন ভারতীয় অভিনেত্রী অর্পিতা ব্যানার্জি। ২০১৭ সালের অক্টোবরে তিনি জানান, বিখ্যাত কাস্টিং ডিরেক্টর জুলি শুবার্টের পরিচয় দিয়ে তাঁর হোয়াটসঅ্যাপে যোগাযোগ করা হয়। তিনি আরো বলেন, ‘যিনি যোগাযোগ করেছিলেন তাঁকে আসল জুলি শুবার্ট মনে করার কারণ ছিল। কেননা তাতে তাঁর আইএমডিবি প্রফাইল, ছবি ও ভিডিও ক্লিপ যুক্ত ছিল।’ ইউরোপের বিভিন্ন দেশে ‘গেম অব থ্রোনস’-এর পরিচয়ে প্রতারণার ঘটনা আকছারই ঘটছে। ২০১৪ সালে স্পেন থেকে এমন একটি চক্রের দুই সদস্যকে গ্রেপ্তারও করা হয়েছিল।

‘গেম অব থ্রোনস’-এর কাস্টিংয়ে প্রতারণা নিয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করা হলে হৃদি কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘এ সম্পর্কে আমার জানা নেই। আমার সঙ্গে ই-মেইলে যোগাযোগ করা হয়। এ ধরনের চরিত্রে আমি অভিনয়ের জন্য প্রস্তুত নই সেটা জানিয়ে দিই। এরপর আর কথাবার্তা এগোয়নি।’

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

« »