শাওমি এমআইইউআই ৯ এর নতুন ফিচারগুলো জেনে নিন

Jan 16 • নিউজ, স্মার্টফোন • 737 Views • No Comments on শাওমি এমআইইউআই ৯ এর নতুন ফিচারগুলো জেনে নিন

চার মাস বেটা স্টেজে থাকার পর আজ স্টেবল ভার্সন মুক্তি পেল শাওমি MIUI 9 রমের গ্লোবাল ভার্সন। গত জুলাইতে প্রথম প্রকাশিত হয় এমআইইউআই ৯ এর পরীক্ষামূলক সংস্করণ। অধিকতর গতির প্রতিশ্রুতি নিয়ে এসেছে এন্ড্রয়েড কাস্টমাইজ করে তৈরি শাওমির জনপ্রিয় এই রম। এমআইইউআই ৯ এ মূলত এন্ড্রয়েড নোগাট ব্যবহৃত হয়েছে। তবে যেসব ডিভাইসে নোগাট সাপোর্ট করেনা, সেগুলোর জন্য এন্ড্রয়েড মার্সম্যালোতে এমআইইউআই ৯ দিয়ে সরবরাহ করা হবে। সেক্ষেত্রে কিছু কিছু ফিচার হয়ত বাদ যাবে। তবে অপেক্ষাকৃত নতুন শাওমি ফোনে স্ট্যান্ডার্ড এমআইইউআই ৯ রম পাওয়া যাবে। তো, চলুন জেনে নিই নতুন উল্লেখযোগ্য কী ফিচার নিয়ে আসছে শাওমি এমআইইউআই ৯।

১. স্প্লিট স্ক্রিন

যদিও স্টক এন্ড্রয়েডেও ইতোমধ্যেই স্প্লিট স্ক্রিন ফিচার চলে এসেছে, তবে কাস্টম রমে তা পেতে হলে এর নির্মাতার জন্য অপেক্ষা করতে হবে। শাওমি ফোন ব্যবহারকারীদের জন্য সেই অপেক্ষার দিন ফুরিয়ে এসেছে। এমআইইউআই ৯ এ স্প্লিট স্ক্রিন ফিচার যুক্ত হয়েছে, ফলে আপনি ফোনের স্ক্রিনকে দুটি আলাদা উইন্ডোতে ভাগ করে দুটি আলাদা অ্যাপ একই সময়ে চালাতে পারবেন। জেনে রাখা ভাল, কিছু কিছু অ্যাপ স্প্লিট স্ক্রিন সাপোর্ট নাও করতে পারে।

২. নোটিফিকেশন ফিল্টার

এমআইইউআই ৯ এর মেশিন লার্নিং সিস্টেম আপনার নোটিফিকেশন ব্যবস্থা কাস্টমাইজ করতে পারবে। যেসব নোটিফিকেশন আপনি বেশি গুরুত্ব দেন, সেগুলো আরও বেশি দৃশ্যমান হবে। অপরদিকে অনাকাঙ্ক্ষিত নোটিফিকেশন যাতে আপনাকে বিরক্ত করতে না পারে, সে ব্যবস্থাও থাকবে এমআইইউআই ৯ রমে। এছাড়া নোটিফিকেশন প্যানেলের জন্য বেশ কিছু স্টাইলিং ফিচারও নিয়ে এসেছে এমআইইউআই ৯। আরও পাচ্ছেন নোটিফিকেশন প্যানেল থেকে কুইক রিপ্লাই সুবিধা।

৩. লকস্ক্রিন শর্টকাট

কিছু কিছু অ্যাপ ফোন লক করা থাকলেও সীমিত আকারে ব্যবহার করতে পারলে অনেক সুবিধা পাওয়া যায়। যেমন রিমোট কন্ট্রোলার, টর্চ লাইট প্রভৃতি। এসব অ্যাপ এখন থেকে আরও বেশি করে লকস্ক্রিনে রাখা যাবে। এমআইইউআই ৯ রমের হোমস্ক্রিন লক করা থাকলেও আপনি এসব অ্যাপের নির্দিষ্ট কিছু তথ্য দেখতে ও সেগুলোতে বিশেষ কিছু কাজ করতে পারবেন।

৪. মেসেজিং

এসএমএস মেসেজ অ্যাপে এমআইইউআই ৯ ‘আজকের’ ও ‘গতকালের’ মেসেজগুলো আলাদা থ্রেডে দেখাবে। এর আগের মেসেজগুলো ‘আরও আগের’ থ্রেডে দেখানো হবে। এটি এখন ভেরিফিকেশন কোড আলাদাভাবে সনাক্ত করতে পারবে।

৫. সহজে এমআই একাউন্ট তৈরি/সাইনইন

এমআই একাউন্ট ওপেন করার জন্য এমআইইউআই ৯ এ কোনো ইমেইল এড্রেস, বা ফোন নম্বর দিতে হবেনা। ফোনে চালু থাকা সিমের মোবাইল নম্বর নিয়ে স্বয়ংক্রিয়ভাবেই শাওমি আপনার এমআই একাউন্ট তৈরি করে দেবে। এরপর লগইন করার জন্য ওয়ান-ট্যাপ সিস্টেমে লগইন করা যাবে।

৬. এমআই ড্রপ

এমআইইউআই ৯ এ প্রিইনস্টলড এসেছে এমআই ড্রপ অ্যাপ, যা অন্যান্য এন্ড্রয়েড ফোনের জন্যও পাওয়া যাবে। এই অ্যাপ দ্বারা ওয়াইফাইয়ের মাধ্যমে এক ডিভাইস থেকে অন্য ডিভাইসে ফাইল সেন্ড করা যাবে। এটি মূলত শেয়ারইট এর মত কাজ করবে।

৭. উন্নততর ফটো এডিটর

এমআই ক্লাউড এলগোরিদম ব্যবহার করে এমআইইউআই ৯ এর ফটো এডিটর এখন ছবি থেকে অনাকাঙ্ক্ষিত বিষয়বস্তু বাদ দিতে পারবে। এটা হতে পারে ব্যাকগ্রাউন্ডে থাকা কোনো প্রাণী, খুঁটি, তার প্রভৃতি। ছবিতে স্পেশাল স্টিকারও অ্যাড করা যাবে।

৮. দুরন্ত গতি

এমআইইউআই ৯ এর স্লোগান হচ্ছে ‘লাইটনিং ফাস্ট’ বা ‘বিদ্যুতগতি’। এটি পূর্বের এমআইইউআই ভার্সনের চেয়ে দ্রুত কাজ করবে বলে জানিয়েছে এর নির্মাতা। শাওমি ভারতে আজ তাদের ইভেন্টে স্যামসাং গ্যালাক্সি জে৭ ম্যাক্স ফোনের সাথে তুলনায় এনে দেখিয়েছে যে এমআইইউআই ৯ স্যামসাং টাচউইজ হোম লঞ্চার থেকে দ্রুত কাজ করে।

উপরের ফিচারগুলো ছাড়াও এমআইইউআই ৯ এ সহজতর হোমস্ক্রিন কাস্টমাইজার ও নতুন ভিডিও প্লেয়ার থাকবে। ফোনের রিং ভলিউম পরিবর্তনের সময় স্লাইডারের পাশে ফোন সরাসরি সাইলেন্ট করার জন্য টগল বাটন থাকবে। অ্যাপ আইকনে এসেছে অ্যানিমেশন সাপোর্ট। ফলে কিছু কিছু অ্যাপের আইকন নড়াচড়া করতে পারবে (যদি ডেভেলপার চান আরকি)। আর এমআইইউআই ৯ এর চায়নিজ ভার্সনে থাকছে বাড়তি কিছু সুবিধা, যেমন স্মার্ট অ্যাসিস্ট্যান্ট। তবে চিন্তার কিছু নেই, কারণ আপনি গ্লোবাল রমে গুগল এসিস্ট্যান্ট ব্যবহারের সুবিধা তো পাচ্ছেনই!

 

ইতোমধ্যেই এমআইইউআই ৯ আপডেট বিভিন্ন ডিভাইসে পৌঁছানোর কাজ শুরু করেছে শাওমি। আপনার ডিভাইসের আপডেট অপশন চেক করে দেখতে পারেন আপনি পেয়েছেন কিনা। কোন কোন ডিভাইস এমআইইউআই ৯ আপডেট পাবে ডিভাইস রিলিজের সময়কাল অনুযায়ী সেগুলোর লিস্ট এখানে দেখুনঃ

২০১৭
মি ম্যাক্স ২, মি নোট ৩, মি ৬, মি ম্যাক্স ২, রেডমি নোট ৪, রেডমি নোট ৪এক্স, রেডমি নোট ৫এ, রেডমি ৪, রেডমি ওয়াই১, রেডমি ওয়াই১ এস।
২০১৬
মি ম্যাক্স, মি নোট ২, মি ৫, মি ৫এস, মি ৫এস প্লাস, মি ম্যাক্স মি ম্যাক্স প্রাইম, রেডমি নোট ৩, রেডমি ৩, রেডমি ৩এস, রেডমি ৪, রেডমি ৪এ।
২০১৫
মি নোট, মি ৪আই, রেডমি ২, রেডমি ২ প্রাইম, রেডমি নোট ৪জি, রেডমি নোট।
২০১৪: মি ৪, রেডমি নোট ৪জি; ২০১৩: মি৩ ; ২০১২: মি২।

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

« »