গোপনে বাংলাদেশে যে চার ফোন আনল নকিয়া

Mar 24 • নিউজ, স্মার্টফোন • 218 Views • No Comments on গোপনে বাংলাদেশে যে চার ফোন আনল নকিয়া

কোনো আয়োজন নেই, অনেকটাই চুপিসারে চারটি মডেলের নকিয়ার ফোন বাংলাদেশের বাজারে আনল এইচএমডি গ্লোবাল। এর আগে বাংলাদেশে নকিয়া ফোন উন্মুক্ত করার সময় সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তর দিতে না পেরে বিব্রত হয়েছিল প্রতিষ্ঠানটি। নকিয়া ফোনসেেটে কম রাম নিয়ে প্রশ্ন করায় কোন উত্তর দিতে পারেনি তারা। এবার তাই গোপনে আনল চার ফোন।
নকিয়া ক্রেতাদের অভিযোগ, তারা বাজারে ফোন পান না, বেশি দামে কিনতে হয়। নকিয়া প্রেমীদের ঠকিয়ে বিশেষ কায়দায় সিন্ডিকেট করে বিক্রি করা হয়।
এ বিষয়ে এইচএমডির এক কর্মকর্তা বলেন, চাহিদার তুলনায় সরবরাহ কম থাকে। বাংলাদেশে নকিয়া মোবাইল ফোন বাজারজাতকারী প্রতিষ্ঠান এইচএমডি গ্লোবাল সোমবার একটি ক্ল্যাসিক ফিচার ফোনসহ তার পুরস্কারপ্রাপ্ত অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোনের পোর্টফলিওতে নতুন তিনটি ফোন বাজারে নিয়ে আসার ঘোষণা দিয়েছে। ফোনগুলো হলো নকিয়া ১, নকিয়া ৭ প্লাস এবং নিউ নকিয়া ৬। সেই সাথে নকিয়ার বিখ্যাত নকিয়া ৮১১০ ফিচার ফোন বাজারে আসছে ফোর-জি সুবিধাসহ। নকিয়া ১ ফোনটি আগামী সপ্তাহ থেকেই দেশব্যাপী সব স্টোরে বাজারে পাওয়া যাবে এবং বাকি তিনটি ফোন আগামী মাস থেকে বাজারজাত করা হবে। এই ফোনটি বিশ্বব্যাপী বাজারে আসার আগেই সর্বপ্রথম বাংলাদেশে বাজারজাত করা হচ্ছে। ক্রেতারা নকিয়ার কাছ থেকে যেরকম মোবাইল ফোন আশা করেন, এবারও ঠিক সেই রকম স্বতন্ত্র বৈশিষ্ট্যমন্ডিত ডিজাইন, দৃষ্টিনন্দন ও টেকসই মানের এসব নতুন ফোন নিয়ে এলো নকিয়া। ওয়ার্ম রেড ও ডার্ক ব্লু রংয়ের নতুন এই ফোনগুলো মোবাইল ফোনকে আরেকটি নতুন ধাপে নিয়ে যাবে।
নতুন মোবাইল ফোনগুলোর মধ্যে দুটি স্মার্টফোন, যথাক্রমে নকিয়া ৭ প্লাস ও নকিয়া ৬ হচ্ছে নকিয়া ব্র্যান্ডের অ্যান্ড্রয়েড ওয়ান ফ্যামিলি সিরিজের ফোন। গুগলের ডিজাইন বা নকশায় তৈরি এই তিনটি ফোনে রয়েছে উচ্চ মানসম্পন্ন সফটওয়্যার; যেগুলো ব্যবহারে দারুণ আনন্দ পাবেন ক্রেতারা। এর মধ্যে নকিয়া ৭ প্লাস সবার কাছে ফ্ল্যাগশিপ হিরো হিসেবে সমাদৃত হবে বলে আশা করা হচ্ছে।
আর নতুন নকিয়া ৬ তো হচ্ছে নকিয়ার পুরস্কারপ্রাপ্ত ফোন, যেটি আগের সংস্করণের তুলনায় গুণমানে অনেক বেশি উন্নত। এই ফোনগুলোর প্রতিটিই হলো সময়োপযোগী, সর্বাধুনিক উদ্ভাবনী সুবিধাসম্পন্ন। এসব ডিভাইস ব্যবহারের ক্ষেত্রে গুগলের কাছ থেকে সর্বোচ্চ মানের প্রযুক্তিগত নিরাপত্তা পাওয়া যাবে। এগুলো হচ্ছে নিখুঁতভাবে তৈরি অ্যান্ড্রয়েড ফোন। এসব ফোনে অপ্রয়োজনীয় কোনো ইউআই চেঞ্জেস (ইউজার ইন্টারফেস) বা হিডেন প্রসেস অথবা গোপন কোনো কিছু নেই, যা ব্যাটারির স্থায়িত্ব খেয়ে ফেলে কিংবা গতি কমিয়ে দেয়। এর ফলে ক্রেতারা দীর্ঘ সময় ধরেই নকিয়ার নতুন দুটি অ্যান্ড্রয়েড ফোন ব্যবহার করতে পারবেন। এই তিনটি নতুন অ্যান্ড্রয়েড ফোনে সীমিত সংখ্যক অ্যাপ ইনস্টল করা আছে। ফলে এগুলোর স্টোরেজে ক্রেতারা প্রচুর পরিমাণ খালি স্পেস বা জায়গা পাবেন। ফলে তাঁরা প্রতিদিনই নিজেদের পছন্দ অনুযায়ী নিত্যনতুন অ্যাপস বা অন্য কিছু ইনস্টল করার সুবিধা পাবেন।
নকিয়া ১ হচ্ছে সহজলভ্য প্রযুক্তিগত উৎকর্ষতার সুবিধা সংবলিত ফোন। এতে রয়েছে একটি আদর্শ স্মার্টফোনের জন্য প্রয়োজনীয় সব গুণমান ও সুযোগ-সুবিধা, যা বিশ্বজুড়ে নকিয়ার প্রতিটি হ্যান্ডসেটে পাওয়ার আশা করেন ক্রেতারা। অ্যান্ড্রয়েড ওরিও ভার্সনে) এই মোবাইল ফোন বিশ্বের আরো অনেক মানুষকে প্রযুক্তি ব্যবহারের সুবিধা এনে দেবে। নকিয়া ১ মোবাইল ফোনটি অত্যন্ত স্বচ্ছন্দে ও সাবলীলভাবে ব্যবহারের উপযোগী করে তৈরি।এটি ব্যবহারে গুগল প্লে স্টোরে ঢোকার সম্পূর্ণ সুযোগ পাওয়া যাবে। সেই সাথে এই হ্যান্ডসেটে অ্যান্ড্রয়েড ওরিও ভার্সনের সুবিধা থাকায় ব্যবহারকারীরা হোয়াটসঅ্যাপ, ফেসবুক, ইনস্টাগ্রামের মতো তাঁদের প্রিয় পছন্দের অ্যাপসগুলো ডাউনলোড এবং ব্যবহার করতে পারবেন। পাশাপাশি মোবাইল ব্যাংকিংয়ের সুবিধাও নেওয়া যাবে এই ফোনটির মাধ্যমে।
এসব চমৎকার অ্যান্ড্রয়েড মোবাইল ফোন সেটগুলো ছাড়াও নকিয়া আবার বাজারে নিয়ে এসেছে নকিয়া ৮১১০ ফিচার ফোন। তবে এই স্লাইডার ফোনটি পুনরায় বাজারে ফিরে এসেছে নতুন কিছু সুযোগ-সুবিধাসহ। উচ্চ মানসম্পন্ন নকিয়া হ্যান্ডসেটের ভক্তরা এই ফোনে ফোর-জি সংযোগ পাওয়ার সুবিধাসহ গুগল অ্যাসিস্ট্যান্ট, গুগল ম্যাপ, গুগল সার্চ, ফেসবুক ও টুইটারের মতো অ্যাপসগুলো ব্যবহারের সুযোগ পাবেন।
ভোক্তাদের নির্ভেজাল, স্মার্ট, নিরাপদ এবং অত্যাধুনিক মোবাইল ফোন ব্যবহারের দুর্দান্ত অভিজ্ঞতা অর্জনের সুযোগ দিতে নকিয়া ফোনের প্রস্তুতকারক ও বাজারজাতকারী প্রতিষ্ঠান এইচএমডি গ্লোবাল প্রতিশ্রতিবদ্ধ। সে অনুযায়ী এইচএমডি গুগলের অ্যান্ড্রয়েড ওয়ান প্রোগ্রামের প্রথম বৈশ্বিক অংশীদার হিসেবে প্রয়োজনীয় সব সুবিধাসম্পন্ন মোবাইল ডিভাইস নিয়ে আসার ঘোষণা দিয়েছে। নকিয়া তার বৈশ্বিক কর্মসূচির আওতায় খাঁটি, স্মার্ট, নিরাপদ এবং অত্যাধুনিক মোবাইল ফোন বাজারজাতকরণে অঙ্গীকারাবদ্ধ।
অ্যান্ড্রয়েড ওরিও সুবিধা থাকায় নকিয়ার নতুন মোবাইল ফোন সেটগুলোর ব্যবহারকারীরা মাল্টি টাস্কিংয়ের জন্য বা নানা ধরনের কাজ করার জন্য পিকচার-ইন-পিকচার, তাৎক্ষণিক অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপস, নির্বিঘে অ্যাপস ব্যবহার, ৬০টি নতুন ইমোজি, টেকসই ব্যাটারি এবং ব্যাকগ্রাউন্ড অ্যাপসহ সর্বাধুনিক সুযোগ-সুবিধা উপভোগ করতে পারবেন।
এইচএমডি গ্লোবালের জেনারেল ম্যানেজার, সাউথ-ইস্ট এশিয়া নিউ মার্কেট, সন্দীপ গুপ্ত বলেন, ‘‘আমরা যেহেতু সব সময়ই আমাদের পণ্যসম্ভারের সম্প্রসারণ করে চলেছি সেহেতু একটি বিষয় মেনে আসছি। সেটি হলো, ভোক্তাদের প্রত্যাশা ও চাহিদা অনুযায়ী নকিয়া ব্র্যান্ডের নামে দুর্দান্ত সব মোবাইল ফোন বাজারে নিয়ে আসা। যেহেতেু আমরা একটি দারুণ সময় পার করছি এবং সামনে এগিয়ে যেতে চাইছি সেহেতু আমাদের পরিকল্পনা হচ্ছে, পোর্টফলিওতে নিত্যনতুন পণ্য নিয়ে আসা; যাতে বাংলাদেশের ভোক্তারা আমাদের পণ্যে নতুনত্ব ও বৈচিত্র্য খুঁজে পান। এ জন্যই তাঁরা নকিয়ার পণ্য ভালোবাসেন, আমাদের ওপর নির্ভর করেন এবং আস্থা রাখেন।

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

« »